সকাল ৮:৩৪, ১৫ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ







আদালতের নির্দেশে পৈত্রিক সম্পত্তি ফিরে পেলেন আব্দুস ছাত্তার

সিলেট প্রতিনিধি:  আদালতের নির্দেশে পৈত্রিক সম্পত্তি ফিরে পেয়েছেন মো. আব্দুস ছাত্তার।  সোমবার ২৫ জানুয়ারি, দুপুরে সিলেট সদর উপজেলার টুলটিকর পুকুরের ইজারা পাপ্পু আহমদ গংদের দখলে থাকা সম্পত্তি থেকে পুকুর ও পুকুরপাড় রকম ভূমি মো. আব্দুস ছাত্তারের কাছে বুঝিয়ে দেন সিলেট জেলা পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) দেলওয়ার হোসেন জেয়ারদার।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, হাজী আব্দুস ছাত্তার, ব্যবসায়ী হাজী আব্দুল গফ্ফার, মহানগর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মুশফিক জায়গীরদার, ব্যবসায়ী তাজুল ইসলাম, মহানগর যুবলীগ নেতা বাবলা চৌধুরী, আং জলিল, মুস্তাকিন আহমদ, জহির আহমদ, আকবর কবির সায়েম, তারেক আহমদ, রিয়াজ আহমদ, কয়েছ আহমদ।

সূত্র জানায়, জেলা পরিষদের মালিকানাধীন সিলেট সদর উপজেলার দেবপুর মৌজার, জে এল নং-৯৬, খতিয়ান নং-০৩, দাগ নং-১৬২১ এর ০.৫৫ একর পুকুর ও পুকুরপাড় রকম ভূমি ২০২০-২০২৩ সালের জন্য নগরের শাহপরান থানার টুলটিকরের পাপ্পু আহমদ গংদের ইজারা প্রদান করা হয়।

এরপ্রেক্ষিতে ২০২০ সালের ২৩ নভেম্বর মো. আব্দুস ছাত্তার টুলটিকর পুকরটি ১৯৭৫ সনের প্রকাশ্য নিলামে স্থায়ীভাবে সুলতান মিয়ার নিকট বিক্রয় করা হয়েছে মর্মে একখানা দরখাস্ত জমা দেন।

তদপ্রেক্ষিতে ১৯৭৫ সনের নথিপত্র পর্যালোচনা করে উপরে তপশিল বর্ণিত পুকুরটি সুলতান মিয়ার নিকট বিক্রয়ের সত্যতা পায় সিলেট জেলা পরিষদ। পরে গতকাল সোমবার দুপুরে পুকুর ও পুকুরপাড় রকম ভূমি মো. আব্দুস ছাত্তারের কাছে বুঝিয়ে দেয় সিলেট জেলা পরিষদ।

এ বিষয়ে সিলেট জেলা পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) দেলওয়ার হোসেন জোয়ারদার বলেন, ১৯৭৫ সনের নথিপত্র পর্যালোচনা করে পুকুরটি সুলততান মিয়ার নিকট স্থায়ীভাবে বিক্রয়ের সত্যতা পায় সিলেট জেলা পরিষদ। এরপ্রেক্ষিতে পুকুকটির ইজারা বাতিল করা হলো। একইসাথে পুকুরটিতে জেলা পরিষদের কোন স্বত্ত¡ না থাকায় পুকুরটি তালিকা হতে স্থায়ীভাবে কর্তন করা হলো।