সন্ধ্যা ৬:৫৬, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

মসজিদে একসঙ্গে ৬ এসি বিস্ফোরণ, ঘটনা তদন্তে ফায়ার সার্ভিসের কমিটি

ডেস্ক রিপোর্ট: নারায়ণগঞ্জের তল্লা বায়তুল সালাহ জামে মসজিদে এশার নামাজের সময় এসি বিস্ফোরণের ঘটনায় ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের পরিচালক (অপস) লে. কর্ণেল জিল্লুর রহমানকে প্রধান করে এই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটি একসঙ্গে কেন ছয়টি এসিই বিস্ফোরিত হয়েছে তা তদন্ত করে দেখবে।

ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল সাজ্জাদ হোসাইন বলেন, বিস্ফোরণের খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে দগ্ধ লোকজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে। মসজিদে ছয়টি এসি ছিল। প্রাথমিকভাবে ছয়টি এসিই বিস্ফোরিত হয়েছে বলে মনে হয়েছে। কেন ছয়টি এসি বিস্ফোরিত হলো তা তদন্তে একটা কমিটি করে দেওয়া হয়েছে।

তবে এদিকে অপর একটি সূত্র বলছে, মসজিদে ছয়টি এসি বিস্ফোরিত হওয়ার ঘটনাটি রহস্যজনক। এশার নামাজের শেষের দিকে এসিগুলো বিস্ফোরিত হয়। প্রায় অর্ধশত মুসুল্লী নামাজ পড়ছিল। বিস্ফোরণের পর মসজিদে গ্যাসের আগুনও দেখা গিয়েছে। একটি সূত্র জানায়, মসজিদের নিচে গ্যাসের লাইন রয়েছে। সেই গ্যাস লিকেজ হয়ে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে কি না তাও খতিয়ে দেখা হবে।

প্রসঙ্গত শুক্রবার নারায়ণগঞ্জের তল্লা বায়তুল সালাহ জামে মসজিদে এশার নামাজের সময় এসি বিস্ফোরণ ঘটে। দগ্ধ ৩৬ জন মুসল্লি ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। আহতদের অনেকেরই ৬০-৭০ শতাংশ শরীর পুড়ে গিয়েছে।