বিকাল ৫:৪১, ২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ







যশোরে কাউন্সিলরের বাড়িতে যুবককে আটকে রেখে মুক্তিপণ দাবি, আটক ৭

পানকৌড়ি নিউজ: ‘যশোরে কহিদুল ইসলাম (২৮) নামে এক যুবককে আটকে রেখে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি ও নির্যাতনের অভিযোগে অপহরণকারী চক্রের সাত সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।’

’রোববার রাত সাড়ে ৭টার দিকে যশোর শহরের পোস্ট অফিস পাড়ার বাসিন্দা ও যশোর পৌর’সভার ৬নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর হাজী আল’মগীর হোসেন ওরফে হাজী সুমনের বাড়ির একটি মেস থেকে তাদের আটক করা হয়।’

‘অপহৃত কহিদুল ইসলামকে উদ্ধার করা হয়। তিনি ঝিনাইদহের কোটচাঁ’দপুর উপজেলার কাগমারি গ্রামের বাসিন্দা।’

আটককৃতরা হলেন যশোর শহরের জেল রোড এলাকার মৃত রফিকুল ইসলামের জাহিদুল ইসলাম (৪৭), ’সদর উপজেলার ফতেপুর গ্রামের ইয়াকুব আলী বিশ্বাসের ছেলে মো. নয়ন (৩৯), পাবনার ঈশ্বরদী থানার পিয়ারখালী গোরস্থান পাড়ার মৃত জয়’নাল আবে’দিনের ছেলে নূর ইসলাম ওরফে সনি (৩৪), যশোর সদরের শেখহাটি বাবলাতলা এলাকার মোসলেম আলীর ছেলে রাব্বি হোসেন ওরফে সাদ্দাম (২৬), যশোর শহরের সার্কিট হাউজ পাড়ার হোসেন আলী গাজীর ছেলে গোলাম রসুল (৩৬), শহরের মুড়লী আমতলী এলাকার হালিম ফকিরের ছেলে শওকত হোসেন ওরফে আপন (৩০), ষষ্ঠীতলা পিটিআ’ই স্কুলের পিছনের বাসিন্দা শ্রীশ্যা’ম মণ্ডলের ছেলে মানিক মণ্ডল (৩১)।’

’কহিদুলের বড়ভাই রাশিদুল ইসলামের কাছে মুক্তিপণের পাঁচ লাখ টাকা দাবি করেন। এ সময় ভিকটিমের কাছে থাকা ৮০ হাজার টাকা ও মোবাইল ব্যাং’কিংয়ের মাধ্যমে আরও ১৯ হাজার ৬০০ টাকা হাতিয়ে নেয়। ভিকটিমের পরিবারের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে অপহরণ’কারীদের অবস্থান সনাক্ত করা হয়। মাইকপট্টি এলাকা থেকে ভিকটি’মকে উদ্ধার ও দুই অপহরণ’কারীকে হাতেনাতে ধরা হয়।