রাত ৪:৪০, ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:







ইরানে বিমান বিধ্বস্ত : ভিন্ন সুর শোনাল ইউক্রেন

পানকৌড়ি নিউজ: ‘ইরানের রাজধানী তেহরানে বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় এবার ভিন্ন সুর শোনাল ইউক্রেন। ঘটনার পরপরই প্রাথমিক প্রতিক্রিয়ায় তেহরানে অবস্থিত ইউক্রেনের দূতাবাস জানায় যান্ত্রিক ত্রুটি’র কারণেই এ দুর্ঘটনা। তবে, এর কিছুক্ষণ পর তাদের সুর পাল্টে যায়। বিমান দুর্ঘটনাটি নাশকতা কি না তা ভাবছে ইউক্রেন।’

‘বুধবার সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রী ওলেকসি হঞ্চারুক নাশকতার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেননি। ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ে ওই বিমানটিকে নামানো হতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি। তবে, এ নিয়ে তিনি সরাসরি কিছু বলেননি।’

তদন্ত না শেষ হওয়া পর্যন্ত এ বিষয়ে কিছু বলতে নিষেধ করেছেন তিনি।
‘এদিকে ১৭৬ আরোহী নিয়ে বিধ্বস্ত ওই বিমানের ব্ল্যাকবক্স বিমানটির প্রস্তুতকারক সংস্থা বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হাতে তুলে দেয়া হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে তেহরান।’

‘তেহরানের বেসামরিক বিমান পরিবহন সংস্থার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এটা স্পষ্ট নয় যে, তদন্তের জন্য অন্য দেশের হাতে বিমানের ব্ল্যাকবক্স যাবে। ওই দুর্ঘটনার কারণ ইরানের বেসামরিক বিমান পরিবহন সংস্থাই তদন্ত করবে। তবে তদন্তের সময় ইউক্রেনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকতে পারেন বলে জানিয়েছে ইরান।’

‘নিহতদের মধ্যে ৮২ জন ইরানি, ৬৩ জন কানাডীয়, ১০ জন সুইডেনের, চারজন আফগানিস্তানের, তিনজন জার্মানির এবং তিনজন ব্রিটেনের নাগরিক। অপরদিকে নয় ক্রুসহ ১১ জন ইউক্রেনের নাগরিক নিহত হয়েছেন।’

‘বুধবার সকালে বোয়িং ৭৩৭ বিমানটি তেহরানের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে উড্ডয়ন করে। এটি ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের পথে যাত্রা করেছিল। ইরানের গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে ওই বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে।’