বিকাল ৩:২৯, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ







প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত আজ

পানকৌড়ি নিউজ: টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরে তিন দিনব্যাপী আয়োজিত বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের তৃতীয় দিন রবিবার (১২ জানুয়ারি) সকাল থেকে হেদায়েতি বয়ান শুরু হয়েছে। বেলা ১১ টার পর আখেরি মোনাজাতের মধ্যদিয়ে শেষ হচ্ছে ইজতেমার প্রথম পর্ব। এই পর্বে আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন রাজধানীর কাকরাইল মসজিদের ইমাম মাওলানা যোবায়ের আহমেদ।

এরপর ৪ দিন বিরতি দিয়ে আগামী শুক্রবার (১৭ জানুয়ারি) থেকে শুরু হবে ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। শেষ হবে ১৯ জানুয়ারি (১৯)। দ্বিতীয়পর্বের আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন ভারতের মাওলানা সা’দ কান্দলভি।

মাওলানা যোবায়েরপন্থীর ইজতেমা মাঠের মুরুব্বি প্রকৌশলী মফিজুর রহমান বলেন, ‘আজকের এই আখেরি মোনাজাতে লাখ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লি আল্লাহর দরবারে রহমত ও হেদায়েত প্রার্থনা করবেন।’

ইতোমধ্যেই ইজতেমা ময়দানে মুসল্লিরা অবস্থান নিয়েছেন বলে জানিয়েছে ইজতেমা আয়োজন কমিটি। ফজর নামাজের পর থেকে লাখো মুসল্লির কণ্ঠে ‘আমিন’, ‘আমিন’ ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে উঠছে তুরাগ নদের তীর।

এই প্রসঙ্গে ইজতেমার প্রথম পর্বের গণমাধ্যমবিষয়ক সমন্বয়কারী মুফতী জহির ইবনে মুসলিম বলেন, ‘ফজর নামজের পর থেকে হেদায়েতি বয়ান করেছেন মাওলানা জিয়াউল হক। আখেরি মোনাজাতের আগে বিশেষ বয়ান করবেন মাওলানা ইবরাহীম দেওলা। হেদায়েতি বয়ান শেষে কাকরাইল মসজিদের হাফেজ মাওলানা জোবায়ের প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন।

’ তিনি আরও বলেন, ‘বয়ানে মাওলানারা তাবলিগের ৬ উসুল নিয়ে আলোচনা করেন। তাবলিগের ৬ উসুল হচ্ছে কালেমা, নামাজ, ইলম ও জিকির, ইকরামুল মুসলিমিন, সহি নিয়ত ও দাওয়াতে তাবলীগ।’

এদিকে, ‘ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতকে কেন্দ্র করে নেওয়া হয়েছে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা। রাত ১২টা থেকে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় রবিবার ভোর থেকে মুসল্লিরা ইজতেমার আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে হেঁটে রওনা হয়েছেন।’

‘বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতে নিরাপত্তা সম্পর্কে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘আখেরি মোনাজাতের পর মুসল্লিদের বাড়ি ফেরা পর্যন্ত ইজতেমা ময়দানসহ আশপাশের এলাকায় পুলিশের নিরাপত্তা অব্যাহত থাকবে।’ এছাড়া, সাদা পোশাকে মুসল্লিদের বেশেও নিরাপত্তায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে জানান তিনি।’