সকাল ৬:০৭, ৩০শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:







তাবিথের গণসংযোগে ছাত্রদল-যুবদলের মারামারি, আটক ৫

ডেস্ক রিপোর্ট: রাজধানীর মিরপুরের সনি সিনেমা হলের সামনে ছাত্রদল ও যুবদলের নেতাকর্মীদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় লাঠির আঘাত ও কিল ঘুষি লাথিতে ৫ জন আহত হয়েছে।

রোববার (১২ জানুয়ারি) ‘বিকেলে ঢাকা উত্তর সি’টি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের গণসংযোগে গিয়ে ছাত্রদল ও যুবদলের মধ্যে মারা’মারির ঘ’টনা ঘ’টেছে। ওই ঘটনা’য় সং’ঘাত ঠে’কাতে পুলিশ ৫ জনকে আ’টক করেছে। এ ঘট’নায় ঢাকা উত্তরের মেয়’র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল শ’ঙ্কা প্রকাশ করেছেন।’

দুপুরের দিকে মিরপুর এক নম্বর মাজার রো;ড এলাকায় প্রচারণা চলাকালে তার কর্মীরা হামলার শি’কার হন। ‘মিরপুর শাহ আলী মাজার এলাকা থেকে তৃতীয় দিনের প্রচার-প্রচারণা শুরু করেন তাবিথ। প্রচারণা চলাকালেই এ হা’মলা চালানো হয়।’

তাবিথ আউয়াল বলেন, ‘প্রতি’পক্ষের লোকজন জয় বাংলা শ্লো’গান দিয়ে আমাদের প্রচারণায় হা’মলা করেছে। ইটপা’টকেল নি’ক্ষেপ করেছে। আমরা প্রচার কাজ চালাতে পারছি না। আমরা শান্তিপূর্ণভাবে প্রচারণা চালাতে চাই। হাম’লায় আল আমিন নামের এক কর্মী আ’হত হয়েছেন।’

রোববার বিকেলে মিরপুর সনি সিনেমা হল এলাকায় এ ঘট’না ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিরপুর বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মোস্তাক আহমেদ।

তিনি বলেন, ‘দুই ওয়ার্ডের দুজন কাউন্সিলর মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়ালকে নিজেদের এলাকায় আগে নেয়ার প্রতিযোগিতায় নামে। এ নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও মারামারি ঘটনা ঘটেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ লাঠিপেটার পর ৫ জনকে আটক করেছে। পুলিশ তাদের থানায় নিয়ে যাচাই বাছাই করছে। এছাড়া অনাকাঙ্খিত ঘট’না এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ ও গোয়েন্দা স’তর্ক পাহা’রায় রয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘গতকাল আমার কর্মীদের ওপর হামলা হয়েছে তা ইসিকে জানাবো। প্রচারণাকালে নির্বাচন কমিশনারের ভূমিকার দিকে তাকিয়ে আছি। ‘এছাড়া মিরপুর শাহ আলী মা’জার জিয়ারতের মাধ্যমে ৩য় দিনের মতো প্রচারণা শুরু করেন। তাবিথ আউয়াল উত্তর বিশিল, গুদারাঘাট, চিড়িয়া’খানা রোড, ১ নং মিরপুর ঈদগাঁ মাঠ , ডি ব্লক মুক্তি’যোদ্ধা মার্কেট, ১২ নং ওয়ার্ডে দক্ষিণ বিশিল, হাজী বশির উদ্দিন স্কুল রোড, হাবুলের পুকুর পাড়, ১৩ নং ওয়ার্ডে উত্তর পীরের বাগ, ৬০ ফিট, মধ্য পীরের বাগ, মোল্লা পাড়া, মনিপুরি স্কুল রোড, জোনাকি রোড, বড়বাগ হয়ে মিরপুর থানা, ১০ নং ওয়ার্ডে মিরপুর মাজার থেকে ২য় কলোনী, ৩য় কলোনী হয়ে দারুস সালাম ফুরফুরা শরীফে জনসংযোগ করেন।’