রাত ১:২৬, ২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:







মানুষকে আমার কাছে আসতে হবে না, আমি মানুষের কাছে যাবো- বাবুল

লিয়ন মীর: ‘বিগত দিনে যেভাবে মানুষের পাশে থেকেছি, এখন যেমন মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খোজখবর নিচ্ছি,  সেবক নির্বাচিত হলে এই একইভাবে মানুষের পাশে থাকবো। আমার কাছে মানুষকে আসতে হবে না, আমি নিজেই মানুষের কাছে যাবো।’

‘আসন্ন ৩০ জানুয়ারি ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ঢাকা দক্ষিণের ১৪নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ সমর্থিত  কাউন্সিলর প্রার্থী হাজী ইলিয়াছুর রহমান বাবলু এই মন্তব্য করেন।’

তিনি বলেন, ‘জনগণের নির্বাচিত প্রতিনিধি হচ্ছে জনগণের সেবক। অনেকই একথাটা ভুলে যান। কিন্তু এটা ভুলে গেলে জনগণ আমাদের ক্ষমা করবে না। ভবিষ্যতে আর মানুষের কাছে যাওয়া যাবে না। যেমনটা বিএনপির বেলায় দেখা যাচ্ছে। তারা ক্ষমতায় থেকে নিজেদের রাজা-বাদশা মনে করতো।’

তাদের কাছে সাধারণ মানুষের কোনো মূল্য ছিলো না। ‘লুটপাটের রাজনীতি করেছে। তাই তারা এখন আর মানুষের কাছে যেতে পারছে না। সর্বস্তরের মানুষ বিএনপিতে প্রত্যাক্ষাণ করেছে। কিন্তু জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা জনগণের প্রধানমন্ত্রী, জনগণের সেবক। আমরা তার কাছে শিখেছি কীভাবে কাজ করতে হয়। কীভাবে মানুষের সেবক হয়ে তাদের পাশে থাকতে হয়। তাই জনগণ আমাদের গ্রহণ করেছে।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের সুফল সঠিকভাবে  ১৪নং ওয়ার্ডের প্রতিটি মানুষের ঘরে পৌছে দিতে আমি বদ্ধপরিকর। আমাদের মেয়র প্রার্থী ব্যারিষ্টার শেখ ফজলে নূর তাপস নগরের উন্নয়নের জন্য ৩০ বছর মেয়াদী পরিকল্পনা করেছেন। তার এই পরিকল্পনার সাথে সমন্বয় করে নগরবাসির প্রাপ্য প্রতিটি সেবা নিশ্চিত করবো।’

উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে মাদক, ‘সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ ও দখলবাজ নির্মূলে সব ধরনের পদক্ষেপ গ্রহন করবো। পরিস্কার পরিচ্ছন্ন স্বচ্ছ একটা ওয়ার্ড গড়ে তুলতে যা যা করনীয় সব করবো। এবার মশা আমাদের একটা ধাক্কা দিয়ে গেছে, ভবিষ্যতে যেনো  এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে না হয় সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। একথায় বলতে চাই- জাতির পিতার শোনার বাংলা গড়তে জনগণের দল আওয়ামী লীগের কোনো বিকল্প নেই বলে সাধারণ মানুষ মনে করছে।’