রাত ৪:১৯, ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:







আ. লীগের বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থীদের ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম

পানকৌড়ি নিউজ: ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থীর ছড়াছড়ি। বিদ্রোহী প্রার্থী ঠেকাতে হিমশিম খাচ্ছে দলটি। এ নিয়ে অস্বস্তিতেও দলের হাইকমান্ড। নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় প্রতীক বরাদ্দ হলেও কাউন্সিলর পদে সেই বিধান নেই। এরপরও কাউন্সিলর পদে আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

তাই সিটি নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে বিদ্রোহী প্রার্থীদের নিয়ে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ। ‘তবে শেষ সুযোগ হিসেবে দলীয় প্রার্থীকে সমর্থন দেওয়ার জন্য বিদ্রোহী প্রার্থীদের আহ্বান জানিয়েছে দলের হাইকমান্ড। যারা এ সিদ্ধান্ত অমান্য করবেন তাদের বিরুদ্ধে বহিষ্কারের সুপারিশ করা হবে। পাশাপাশি আওয়ামী লীগের মহানগরের পূর্ণাঙ্গ কমিটি, থানা ও ওয়ার্ড কমিটিতে যাতে বিদ্রোহীরা স্থান না পান, সে বিষয়েও কঠোর থাকবে দলটি।’

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) ‘দুপুরে ঢাকা উত্তর সিটিতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থীদের দল থেকে ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম দেওয়া হয়েছে। ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থীদের ডেকে এনে এই আলটিমেটাম দেওয়া হয় বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।’

এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফের নেতৃত্বে ছিলেন দলের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, ‘ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এ মান্নান কচি প্রমুখ।’

‘বুধবার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দক্ষিণ সিটির বিদ্রোহীদের সঙ্গে বসবেন দলের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু, সভাপতিম-লীর সদস্য আবদুর রহমানসহ মহানগর দক্ষিণের শীর্ষনেতারা।’

‘৩০ জানুয়ারি ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচন। এ নির্বাচনে দলীয়ভাবে মেয়র পদে মনোনয়ন দিয়েছে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। একইভাবে কাউন্সিলর পদে প্রার্থী সমর্থন দিয়েছে উভয় দল। তবে কাউন্সিলর পদে অনেক ওয়ার্ডেই বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের। এ নিয়ে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে দলটির নির্বাচন পরিচালনা কমিটির মধ্যে।’

‘বিভিন্ন ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় ভোটারদের মধ্যেও কাজ করছে সিদ্ধান্তহীনতা। বিদ্রোহী ও দল সমর্থিত উভয় প্রার্থীই মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়া উত্তরের আতিকুল ইসলাম ও দক্ষিণের ফজলে নূর তাপসের ছবি ব্যবহার করছেন।’