সকাল ১১:৫৬, ২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ







উৎসবমুখর প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনের আশা তাপসের

ডেস্ক রিপোর্ট: ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উৎসবমুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে উল্লেখ করে একটি ‘প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ও অংশগ্রহণমূলক’ নির্বাচনের প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস।

‘বুধবার রাজধানীর কদমতলী-শ্যামপুর এলাকা থেকে ষষ্ঠ দিনের মতো প্রচারণা শুরু করতে গিয়ে ধোলাইপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে এক পথসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে এই প্রত্যাশার কথা জানান তিনি।’

শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, ‘নির্বাচনে নেতাকর্মী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ কিন্তু নেমে গেছে। একটা উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচনের আমেজ বজায় রেখেছে। আমরা আশা করি যে, অত্যন্ত সুষ্ঠুভাবে নির্বাচনটা সম্পন্ন হবে এবং প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ও অংশগ্রহণমূলক একটি উৎসবমুখর পরিবেশ বজায় থাকবে।’

‘নির্বাচিত হলে প্রথমদিন থেকে কাজ শুরু করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তিনি বলেন, ‘গত পাঁচদিন ঢাকাবাসীর কাছ থেকে আমরা গণসংযোগে ব্যাপক স্বতঃস্ফূর্ত সাড়া পাচ্ছি। আমরা যে উন্নয়নের রূপরেখা দিয়েছি পাঁচভাবে বিভক্ত করে ঢাকাবাসী সেটা সাদরে গ্রহণ করেছে।’

‘তারা স্বতঃস্ফূর্তভাবে প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন এবং আমাদের অনেক ভালোবাসা দিয়ে আলিঙ্গন করে নিচ্ছেন। আমি বিশ্বাস করি, ৩০ জানুয়ারি বিপুল ভোটে নৌকার বিজয় হবে এবং আমরা ঢাকাবাসীর প্রত্যাশা পূরণে দায়িত্ব পাওয়ার প্রথম দিন থেকে কাজ আরম্ভ করবো এবং উন্নত ঢাকা গড়ে তুলবো।’

‘আচরণবিধি লঙ্ঘন নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আওয়াসী লীগ মনোনীত এই প্রার্থী বলেন, ‘কোনো ধরনের কাজে যাতে আচরণবিধি লঙ্ঘন না হয় সেজন্য আমাদের মনিটরিং টিম সার্বক্ষণিকভাবে কাজ করছে। সেদিকে আমরা খুব সজাগ ও সতর্ক দৃষ্টি রাখছি। যেখানে আমরা জানতে পারছি, সেখানে সাথে সাথে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি।’

আমাদের নির্বাচন পরিচালনা কমিটিও সার্বিকভাবে কাজ করছে। একই সঙ্গে এলাকাভিত্তিক যে নির্বাচনী মনিটরিং টিম করেছি তারাও কাজ করছে। মানুষের মধ্যে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা সৃষ্টি হয়েছে। ‘একটি গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। এজন্য কিছুটা হয়তো জনগণের অসুবিধা হতে পারে। তবে যা হোক আমরা এই বিষয়টি আরও সচেতভাবে দেখবো।’

এ সময় তিনি বলেন, ‘আপনারা লক্ষ্য করেছেন আমি যেখানেই যাচ্ছি, সেখানে কিন্ত সবাইকে নির্দেশনা দিচ্ছি তারা যেন সুশৃঙ্খলভাবে প্রচারণায় অংশগ্রহণ করে। জনগণের জন্য কোনো ভোগান্তি না হয়। সুত্র: বিডি প্রতিদিন