বিকাল ৪:২৫, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ







বিয়ে করাটা কি খুবই জরুরি সবার: মিষ্টি জন্নাত

বিনোদন ডেস্ক: ঢাকাই চলচ্চিত্রের নায়িকা মিষ্টি জান্নাত। শাহাদাৎ হোসেন লিটন পরিচালিত লাভ স্টেশন চলচ্চিত্রের মাধ্যমে মিষ্টির অভিষেক বড় পর্দায়। এরপর কাজ করেছেন আরো বেশ কিছু চলচ্চিত্রে। গত বছরের শুরুর দিকে মুক্তি পেয়েছে বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত চলচ্চিত্র ‘তুই আমার রানি’। ইতোমধ্যে আরও বেশ কিছু চলচ্চিত্রে অভিনয়ের কথা চলছে তার।

যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত চলচ্চিত্রটি মুক্তির পর নিজেকে বেশ বদলে ফেলছেন মিষ্টি। নিয়োমিত জিম করে শারীরিক ভাবে নিজেকে ফিট করছেন। ইতোমধ্যে নিজের ওজন কমিয়ে বেশ নিজেকে ভিন্ন মাত্রায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টায় আছেন এই নায়িকা। যা তার ফেসবুক ওয়ালে ঘুরলেই দেখা যায়।

এদিকে সম্প্রতি নায়িকার পাশাপাশি নতুন আরো এক তকমা যুক্ত হলো তার নামের পাশে। মিষ্টি জান্নাত রাজধানীর শিকদার মেডিকেলে পড়াশোনা করতেন। সেখান থেকেই ডাক্তার হয়ে বের হলেন তিনি। বৃহস্পতিবার প্রকাশ হয়েছে তার পরীক্ষার ফলাফল।

পূর্বপশ্চিমের সঙ্গে আলাপ কালে মিষ্টি জান্নাত বলেন, কাজের পাশাপাশি পড়াশোনাটা চালিয়ে যেতে বেশ কষ্ট হয়েছে।তবে অবশেষে সেই কষ্ট সার্থক হয়েছে আমার। আমার মা আমার থেকে বেশী খুশি। আর মায়ের খুশিই আমার খুশি।

পড়াশোনা শেষ বিয়ে কবে করছেন এমন প্রশ্নের জবাবে হেসে হসে মিষ্টি বলেন, তা দেরি আছে, কমপক্ষে আরো ৫-৬ বছর পর। আগে নিজেকে আরো গুছিয়ে নেই তারপর বিয়ে।

প্রেম করছেন কিনা জানতে চাইলে এই নায়িকা বলেন, হা হা হা প্রেমে তো সব সময় পড়ছি। তবে কিছু দিন হলো একজন বেশ ভালো লেগেছে। যদিও তিনি আমার থেকে বয়সে অনেক বড়। তেমন করে কিছুই বলা হয়নি বলেই আবার হাসি দেন মিষ্টি।

এদিকে মিষ্টি জান্নাত রোবাবার বিকেলে তার ফেসবুকে একটি স্যাস্টাস দেন। সেখানে তিনি লিখেন,

বিয়ে করাটা কি খুব ই জরুরী সবার ?????

কারন সংসার আমাকে টানে না।

ধরাবাধা জীবন আমি চাই না।

আমি ফরিং এর মতন উড়তে চাই ।

একঘেয়ে জীবন আমার পছন্দ না ।

আর এটা শুনে সবাই ভাবে আমি সাহিত্য প্রেমী ।।

কিন্তু না, আমি সাহিত্য প্রেমি ও না।

কিন্তু যাকে কিনা ভালো লাগে, সে সাহিত্যিক আবার !!

কবিতা লিখতে গিয়ে অনেক বার একসাথে অনেকগুলো লিখেছি ….,,,

কিন্তু একটাও শেষ করতে পারি নি !!!

তাই আমি কবি ও না ।

কিন্তু আমি খুব ভালো অভিনেত্রী, পর্দায় না হলেও বাস্তবে একজন দক্ষ অভিনেত্রী !!!!