রাত ৮:৩৪, ২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ







বিষাক্ত কয়েলের কারণে শুক্রানু কমছে, গর্ভপাত ও প্রিম্যাচিউর বাচ্চার জন্ম বাড়ছে

পানকৌড়ি নিউজ:দেশের একজন প্রখ্যাত গাইনি বিশেষজ্ঞর গবেষণায় জানা যায়, ডেঙ্গুর মশা তাড়াতে আমরা নিয়মিত যে মশার কয়েল ব্যবহার করি। তা আমাদের স্বাস্থ্যব্যবস্থার জন্য মারাত্মক হুমকি। আরো বড় হুমকি নারীর প্রজনন স্বাস্থ্যর জন্য। ডাক্তার প্রতিদিন

মানুষের প্রজনন ক্ষমতা কমিয়ে দিচ্ছে। গর্ভপাতের হার বাড়িয়ে দিয়েছে। পুরুষের শুক্রানু কমে যাচ্ছে। প্রিম্যাচিউরজ বাচ্চার জন্মহার বেড়ে গেছে।

গাইনোকোলজিস্ট ডা. নওশিন শারমিন পূরবী বলেছেন, অননুমোদিত মাত্রার বিষাক্ত রাসায়ানিক ব্যবহার করে তৈরি করা মশার কয়েল প্রজনন স্বাস্থ্যের ওপর মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব ফেলছে।

এসব কয়েলের ধোঁয়া মশা মারছে ঠিকই, কিন্তু তা মানুষের প্রজনন ক্ষমতা কমিয়ে দিচ্ছে। গর্ভপাতের হার বাড়িয়ে দিয়েছে। পুরুষের শুক্রানু কমে যাচ্ছে। প্রিম্যাচিউরজ বাচ্চার জন্মহার বেড়ে গেছে।

ডা. পূরবী বলেন, এসব কয়েলের ধোঁয়া চোখে কম দেখা, মাথাব্যাথাসহ নানা সমস্যার জন্ম দিচ্ছে। অনুলিখন: জেবা আফরোজ