দুপুর ২:০৫, ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

মেসিকে হারিয়ে আর কোনো স্ট্রাইকার নিতে চাননি গার্দিওলা

ডেস্ক রিপোর্ট: সার্জিও আগুয়েরো নতুন করে ইনজুরিতে পড়ার পর দলে নতুন একজন স্ট্রাইকার নিতে চেয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন ম্যানেচস্টার সিটি কোচ পেপ গার্দিওয়ালা। সিটির বিশ্বাস ছিল ক্যাম্প ন্যু ছাড়ার ঘোষণা দেয়া আর্জেন্টাইন সুপারস্টার লিওনেল মেসিকে তারা দলে নেবে। কিন্তু কাতালান জায়ান্টরা মেসিকে দলে থাকতে বাধ্য করে। ফলে অন্য কোনো স্ট্রাইকারের বিষয়ে আর আগ্রহ দেখাননি গার্দিওলা।

এখন স্ট্রাইকার সংকটে পড়েছে সিটি। কারণ দলে অগ্রভাগের দুই কাণ্ডারী আগুয়েরো ও গাব্রিয়েল জেসুস এখন ইনজুরিতে। হাঁটুর অস্ত্রোপাচার করানো আগুয়েরো সুস্থ হয়ে ফেরার পর ফের ইনজুরিতে পড়েছেন। শনিবার ওয়েস্টহ্যামের বিপক্ষে ড্র হওয়া ম্যাচে তিনি পেশির ইনজুরিতে আক্রান্ত হয়েছেন। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মার্শেই’র মোকাবেলার প্রস্তুতি নিতে যাওয়া সিটির আরেক স্ট্রাইকার জেসুস উরুর সমস্যায় ভুগছেন। গার্দিওলা দলীয় সামর্থ্য বাড়ানোর লক্ষ্যে গত দলবদলের সময় নিজের পরিকল্পনার কথা প্রকাশ করেছিলেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা তা বাস্তবায়ন করতে পারিনি। আমরা অন্য ধরণের স্ট্রাইকারের কথা ভেবেছিলাম। ক্লাবও তাদের সামর্থ্য অনুযায়ী করেছে। তারাও ক্লাবে পুনরায় বিনিয়োগ করতে চেয়েছিল। আমাদের দলটি যথেষ্ট তরুণ। আপনি যখন স্ট্রাইকার কেনার সিদ্ধান্ত নেবেন, তাহলে সেটি হতে হবে জেসুসের মানের। কিন্তু এই ব্যয়ভার আপনি বহন করতে পারছেন না। এটিই বাস্তবতা। আমি বলছি না ক্লাব সেটি করতে চায়নি। তারাও চেয়েছিল যতটুকু সম্ভব শক্তিশালী দল গঠন করতে। তবে আমরা ভেবেছিলাম সার্জিও ফিরে আসবেন। আর গাব্রিয়েলের ইনজুরি আশা করিনি।’

চলতি মাসের শুরুতে আর্সেনালের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে দলের হয়ে মাঠে ফিরেছিলেন আগুয়েরো। গার্দিওলা ভেবেছিলেন ৩২ বছর বয়সি এই তারকা আরো আগ্রাসী হয়ে ফিরবেন। সিটি কোচ বলেন, ‘হাঁটুর সমস্যার কারণে যদি আপনি চার পাঁচ মাসের জন্য মাঠের বাইরে থাকেন, তাহলে মাঠে ফেরার পর ইনজুরির ঝুঁকিতে থাকবেন। ম্যাচের ৫০-৫৫ মিনিট পর্যন্ত আমরা পরিস্থিতি সামালের চেষ্টা করেছি। কিন্তু গোটা সময় সেটি রক্ষা করা কঠিন ছিল।’