বিকাল ৩:৪১, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:







ভারতে আজ ১০ হাজার রেমডেসিভির পাঠাচ্ছে বাংলাদেশ

ডেস্ক নিউজ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন এই প্রতিবেদককে বলেন, ভারতের যেসব প্রদেশগুলো থেকে সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে, আমরা তাদেরকে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের অনুমতি নিতে বলেছি। তারা যদি অনুমতি পায়, তখন আমরা সহযোগিতা করবো।

করোনা মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভারতকে সহযোগিতায় জরুরি ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম দিতে চায় বাংলাদেশ। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা সকল প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছি, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকেও ফাইলপত্র রেডি করে রাখা হয়েছে।

ভারতকে বাংলাদেশ সরকারের সহায়তার মধ্যে থাকছে প্রায় ১০ হাজার অ্যান্টিভাইরাল ইনজেকশন ও মুখে গ্রহণের ওষুধ, ৩০ হাজার পিপিই, কয়েক হাজার জিংক, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন সি ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় ট্যাবলেট।

দায়িত্বশীল সূত্র বলছে, পর্যায়ক্রমে অন্যান্য জরুরি ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠানো হবে এবং প্রয়োজনে ভারতকে আরও সহায়তা দিতে আগ্রহী বাংলাদেশ । দেশটি তাদের যে চাহিদাপত্র দিয়েছে সেটি নিয়েও কাজ করছে ঢাকা।

করোনা সংক্রমণের বিস্তারে ভারতে মানুষের মৃত্যুতে বাংলাদেশ সরকার এরই মধ্যে গভীর দুঃখ ও সমবেদনা প্রকাশ করেছে। ভারতের জনগণের দুর্ভোগ যাতে লাঘব হয়, সে জন্য বাংলাদেশের জনগণ প্রার্থনা করছে।

সংকটময় এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ তার ঘনিষ্ঠ প্রতিবেশী ভারতের পাশে আছে উল্লেখ করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, মানুষের জীবন বাঁচানোর সম্ভাব্য সব উপায়ে সহায়তা দিতে বাংলাদেশ প্রস্তুত রয়েছে।

জরুরি ওষুধ পাঠানোর ঘোষণায় ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশন বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানিয়ে টুইটে বলেছে, বাংলাদেশ-ভারত একসঙ্গে এ মহামারি জয় করবে।