সকাল ৭:০৬, ১৫ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ







ভোলায় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপন করা হয়েছে

মো জাফর ইসলাম, ভোলা জেলা প্রতিনিধি: রোববার (৭মার্চ) সকালে জেলা প্রশাসক চত্বরে ও জেলা আওয়ামী লীগ অফিসে বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। পরে জেলা আওয়ামী লীগ অফিসে একটি আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সারা দিনব্যাপী ভোলা জেলা প্রশাসন ও জেলা আওয়ামী লীগ এর নানান কর্মসূচি রয়েছে।

নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ভোলায় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উদযাপিত হয়েছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার,জেলা আওয়ামী লীগ সহ সর্বস্থরের জনগণ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মোঃ তৌফিক-ইলাহী চৌধুরী, পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার, সিভিল সার্জন ডাঃ সৈয়দ রেজাউল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আবদুল মমিন টুলু, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোশাররফ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক শফিকুল ইসলাম, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম গোলদার, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল ইসলাম, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. ইউনুস সহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, আজকের দিনটি আমাদের জন্য অত্যন্ত স্মরণীয় একটি দিন। ১৯৭১ সালের এই দিনে রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) বিশাল জনসমুদ্রে দাঁড়িয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের ডাক দিয়েছিলেন। ২০১৭ সালে বঙ্গবন্ধুর সেই ঐতিহাসিক ভাষণ ‘বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য’ হিসেবে ইউনেস্কোর ‘মেমোরি অব দ্য ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্টার’এ অন্তর্ভূক্ত হয়ে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পেয়েছে। তাই আজকের এই দিনে আমরা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি।

বক্তারা আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু-কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে চলছে। দেশের এই উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় সকলকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান।

উল্লেখ, ১৯৭১ সালের এই দিনে বঙ্গবন্ধু ঐতিহাসিক রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমান সোহরাওয়ার্দি উদ্যান) তার বজ্র নিনাদ কন্ঠে এক কালোত্তীর্ণ ভাষণের মাধ্যমে বাঙালি জাতিকে স্বাধীনতার মন্ত্রে উজ্জীবিত করেন। এই ভাষণের মধ্য দিয়ে তৎকালীন সাড়ে ৭ কোটি মুক্তিকামী বাঙালির আশা-আকাঙ্ক্ষার প্রতিফলন ঘটে।