সকাল ১১:৫৪, ১৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ







রাসেলের মুক্তির দাবি জানালেন গ্রাহকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : দেশীয় ই-কমার্স সাইট ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) রাসেল ও তার স্ত্রী শামীমা নাসরিনের ( চেয়ারম্যান) মুক্তির দাবিতে আজ বিকেলে শাহবাগে জড়ো হয়েছিলেন প্রতিষ্ঠানটির গ্রাহক, পাইকারি বিক্রেতা ও ও অসংখ্য কর্মী।

তাদের এক দফা এক দাবি, রাসেল ভাইয়ের মুক্তি চাই; বাংলাদেশের ই-কমার্স, ধ্বংস হতে দেব না; ষড়যন্ত্রের কালো হাত, ভেঙে দাও, গুঁড়িয়ে দাও ইত্যাদি স্লোগান দেন।

আজ শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বেলা ৩টার দিকে রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে জাতীয় জাদুঘরের সামনে তারা জমায়েত হতে শুরু করেন। এরপর সোয়া ৩টার দিকে ব্যানার নিয়ে শাহবাগ মোড়ে মানববন্ধন করেন। এসময় তারা দাবি করেন, রাসেলকে আটক রেখে এর কোনো সমাধান হবে না, তাকে যত দ্রুত সম্ভব মুক্তি দেয়া হোক এবং তাকে সুযোগ দেওয়া হোক।

রাসেলের মুক্তির দাবিতে শাহবাগে আসা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক গ্রাহক দাবি করে বলেন, প্রায় ৯৫ শতাংশ অর্ডার ডেলিভারি পেয়েছি। বাকি অর্ডারগুলো পেন্ডিংয়ে আছে।

তিনি আরও বলেন, ইভ্যালির সঙ্গে অনেকদিন হলো ব্যবসা করছি। এতে আমরা অনেক খুশি। তবে অনেকেরই অনেক টাকা-পয়সা পেন্ডিং রয়েছে এটাও ঠিক।

রাসেলের মুক্তির দাবিতে শাহবাগে আসা আরও অনেকেই বলেন, আমাদের বন্ধুরা অনেকই ইভ্যালির মাধ্যমে উপকৃত হয়েছে। আবার অনেকই টাকা বা পণ্য পায়নি। এখন রাসেলের জেল হলে, আমাদের টাকাটা কে দেবে?

মানববন্ধনে ইভ্যালির গ্রাহকরা রাসেলের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন। এ সময় তাদের হাতে সেইভ ইভ্যালি, সেইভ ই-কমার্স, আই সাপোর্ট ইভ্যালি, সেইভ রাসেল ইত্যাদি প্ল্যাকার্ড দেখা যায়।