সকাল ৯:১২, ৯ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ







পাকিস্তানে অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন ব্যবহারে ছাড়পত্র

অনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস প্রতিরোধে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিড ভ্যাকসিনকে জরুরি ভিত্তিতে ব্যবহারে অনুমোদন দিয়েছে পাকিস্তান।

শনিবার পাকিস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও ইমরান-ঘনিষ্ঠ ড. ফয়জল সুলতান সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন ‘ড্রাগ রেগুলেটরি অথোরিটি অব পাকিস্তান’ এই ভ্যাকসিন ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে।

ইমরান খানের দেশে বেড়েই চলেছে করোনা সংক্রমণ। কিন্তু এতদিন তারা কোনও ভ্যাকসিনকেই অনুমতি দেয়নি। কাকতালীয়ভাবে ভারতে যেদিন থেকে টিকাকরণ শুরু হল, সেদিনই এই পদক্ষেপ নিল পাকিস্তান।

অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনটিকে প্রথম অনুমোদন দিয়েছিল ব্রিটেন। গত ডিসেম্বরে তারা এটি ব্যবহারের অনুমতি দেয়। অনেক ভ্যাকসিনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও এখনও পর্যন্ত এই ভ্যাকসিন সম্পর্কে তেমন অভিযোগ নেই। সেই সঙ্গে এটির কার্যকারিতাও প্রমাণিত। দু’টি ডোজ নেওয়ার ১৪ দিন পরে কারও আক্রান্ত হওয়ার খবর মেলেনি।

এদিকে ফয়জল জানিয়েছেন, পরিস্থিতির দিকে নজর রেখেই বিভিন্ন জায়গা থেকে ভ্যাকসিন কিনবে ইমরান খান সরকার। এর মধ্যে ‘বন্ধু’ চীন থেকে সিনোফার্মের ১০ লাখেরও বেশি ডোজ নেবে তারা। পাশাপাশি দ্বিপাক্ষিক ক্রয় চুক্তি ও কোভ্যাক্স ফেসিলিটির মাধ্যমেও ভ্যাকসিন কেনার অপেক্ষায় রয়েছে ইসলামাবাদ।

এদিকে ড্রাগ রেগুলেটরি অথরিটির থেকে চীনের ভ্যাকসিনের অনুমোদনের অপেক্ষাও রয়েছে। বহু ভ্যাকসিন নির্মাতার সঙ্গেই কথা চালাচ্ছে পাকিস্তান প্রশাসন। ফয়জলের কথায়, “চীনের ক্যানসিনোবায়োর সঙ্গে চুক্তি হয়ে গেলে সেখান থেকেও এক কোটির বেশি ডোজ পাওয়া যাবে।”