সকাল ১১:৪৪, ১৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ







বগুড়ায় মুলআসামীদের আড়াল করতে নির্দোষকে ফাঁসানোর চেষ্টা

এস এম সালমান হৃদয় বগুড়াঃ বগুড়ায় মুলআসামীদের আড়াল করে নিরীহ রুমান মাহমুদ কে ফাঁসানোর গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। এব্যাপারে ভুক্তভোগী রুমান মাহমুদ অতিরিক্ত ডিআইজি বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন। প্রাপ্ত তথ্যে জানা গেয়েছে বগুড়া জেলার শাহজাহানপুর থানা মামলা নং -১৩ জিআর-৩৬১/১৯ তারিখঃ-১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ইং মুলআসামীদের আড়াল করে ভুল তদন্ত ও সত্য গোপন করে মিথ্যা চার্জশীট গঠনের মাধ্যমে হয়রানির স্বীকার করার চেষ্টা করা হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ছিলেন তৎকালীন বগুড়া ডিবি অফিসের এস আই মোস্তাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে। রুমান মাহমুদ জানান উক্ত মামলায় চক্রান্ত করে অন্যায় মূলক তাহাকে ফাঁসানো হয়েছে।তিনি সম্পূণরুপে নিজেকে নির্দোষ দাবী করেন। তাহার বিষয়ে মামলায় উল্লেখিত সকল বিষয় চক্রান্তমূলক,হ্মোভ এবং অসৎ উদ্দেশ্যে সাজানো হয়েছে।

তিনি আও জানান মামলায় উল্লেখিত বিষয়ে কোন আসামীদের সাথে কখনো কথা বা দেখা হয়নি।মামলার বাদী মাহবুবুল আলম কে তিনি চেনেন না ও তার কোন অফিসে যাওয়া দূরে কথা আশেপাশেও কখনো যাননি এবং সে মামলার বিষয়ে অবগত নহে। মামলায় উল্লেখিত লোকদের টাকা দেওয়ার বিষয়টি সম্পূর্ণ সাজানো মিথ্যা এবং বানোয়াট। অন্য আসামী কর্তৃক অনৈতিক সুবিধা ভোগ করে মুল আসামীদের আড়াল করে তাহাকে চক্রান্তমূলকভাবে সত্য গোপন করে ফাঁসিয়েছে। মোটা অঙ্কের দাবিকৃত অর্থ না দেওয়ায় তাকে শারীরিক মানুষিক নির্যাতন ও আক্রোশমুলকভাবে ফাঁসিয়েছেন বলে তিনি জানান পূর্ব হইতে শক্রুতামূলক একটি বিশেষ মহল তাকে ফাঁসাতে মরিয়া হয়ে অন্য আসামীদের সাথে যোগসাজশে তদন্তকারীদের হাত করে চক্রান্তমূলক ভাবে সত্য গোপন করে। মুলআসামীদের আড়াল করে ফাঁসিয়েছে বলেও ভুক্তভোগী রুমান মাহমুদ জানায়। মামলায় সত্য উদঘাটন আবশ্যক অন্যাথায় সৎ নিষ্টাবান সৎ চরিত্রবান, নীতি আদর্শবান নিরীহ সাধারণ মানুষ হিসাবে নির্দোশের প্রতি অবিচার হবে। তিনি সুস্ঠ বিচার দাবি করেন। রুমান মাহমুদ এ ব্যাপারে অতিঃডিআইজি বরাবর প্রতিকার চেয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন