দুপুর ১২:২৮, ১৯শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ







আজও আমার মনে তিনি ২৫ বছরের তরুণ: শাকিব খান

ঢাকাই চলচ্চিত্রের রাজপুত্র সালমান শাহ। মৃত্যুর দুই যুগ পরেও আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তা তার।এখনও টিভি পর্দায় তার অভিনীত সিনেমা প্রচার হলে দর্শক আগ্রহ নিয়ে দেখেন। বেঁচে থাকলে ৫১ বছরে পা দিতেন অসংখ্য ভক্তের এই স্বপ্নের নায়ক। বিশেষ এই দিনে তাকে নিয়ে স্মৃতিচারণ করেছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের বর্তমান সুপারস্টার শাকিব খান।

নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে দীর্ঘ একটি স্ট‌্যাটাসের শুরুতে তিনি লিখেছেন, ‘দ্যুতিময় এক শিল্পীর নাম সালমান শাহ। বেঁচে থাকলে তিনি আজ ৫০ বছরে পা রাখতেন। হয়তো বয়সের ছাপ ফুটে উঠতো তার হাসিতে। গলায় ভর করতো গাম্ভীর্য। দুয়েকটা সাদাচুল দেখা গেলেও তার নায়ক সুলভ ব্যক্তিত্বের সামনে হয়তো কোনো পাত্তাই পেত না! তাকে নিয়েই ৫০তম জন্মদিনের সুর্বণ জয়ন্তী পালন করতাম।’

সালমান শাহ ছিলেন তারুণ্যের আইডল। তাকে অনুসরণ করে সেসময়ের লাখো অনুরাগী। এখনো তরুণদের মাঝে তার স্টাইলের প্রতিফলন দেখা যায়। শাকিব খান জানান, ‘বাংলা চলচ্চিত্রের ইতিহাসে ক্ষণজন্মা এ মানুষটি ২৫ বছর আগে চলে গেলেও আজও আমার মনে সেই ২৫ বছরের তরুণ নায়ক হয়ে দাগ কেটে আছেন। যে দাগটা তার প্রস্থানের এতো বছর পরেও জ্বলজ্বলে।’

সালমানের জনপ্রিয়তা প্রসঙ্গে ঢাকাই কিং লিখেছেন, ‘অভিনয় জীবনে অল্প সময়ে এতো মানুষের ভালোবাসা পাওয়া যে সত্যি দুর্লভ ভাগ্যের ব্যাপার, সেটা সালমান শাহকে দেখলে বোঝা যায়। আজও বাংলার মানুষ তাকে আবেগ ও শ্রদ্ধায় স্মরণ করছে, ভবিষ্যতেও করে যাবে।’

সালমান শাহ তার কর্মের মধ্যেই অমর হয়ে আছেন। এ প্রসঙ্গে শাকিব লিখেছেন, ‘একজন মানুষ অমরত্ব পায় তার কর্মের মাধ্যমে। সালমান শাহ নামক মহান শিল্পী অকালে চলে গিয়েও আমাদের কাছে অমর হয়ে আছেন। তিনি বেঁচে থাকবেন তার ভক্ত অনুরাগীদের হৃদয়ে, প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে।’

সবশেষে চলচ্চিত্রের রাজপুত্রকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে শাকিব লিখেছেন, ‘শুভ জন্মদিন ইতিহাসের অন্যতম শ্রেষ্ঠ নায়ক সালমান শাহ।