ভোর ৫:৩৪, ৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ







যুক্তরাষ্টকে ঠেকাতেই হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র বানিয়েছি: রাশিয়া

যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো রাশিয়ার সঙ্গে সামরিক ভারসাম্য নষ্ট করেছে অভিযোগ করে দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটোকে প্রতিহত করতেই হইপারসনিক (শব্দের চেয়ে অন্তত পাঁচগুণ বেশি গতিসম্পন্ন) ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করা হয়েছে।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২০ জুলাই) ক্রেমলিনে এক সংবাদ সম্মেলনে পেসকভ এ কথা জানান।

সমরাস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তিগুলো গত কয়েক দশকে অকার্যকর হয়ে যাওয়ার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, এর কারণ যুক্তরাষ্ট্র অ্যান্টি-ব্যালিস্টিক মিসাইল ট্রিটি বা এবিএম চুক্তি থেকে বেরিয়ে গেছে।
তিনি বলেন, তাছাড়া দেশটি ও তোর জোট রাশিয়া সীমান্তের কাছে ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করেছে। যাা দ্বারা রাশিয়ায় হামলা চালানো সম্ভব। তাই নিজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার চেষ্টা করছে রাশিয়া।
এর আগে, গত সোমবার (১৯ জুলাই) হাইপারসনিক ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ‘জিরকন’-এর সফল পরীক্ষা চালায় রাশিয়া। শ্বেত সাগরে অবস্থিত রুশ যুদ্ধজাহাজ অ্যাডমিরাল গোর্শকভ থেকে ক্ষেপণাস্ত্রটি নিক্ষেপ করা হয় এবং সেটি ৩৫০ কিলোমিটার দূরবর্তী একটি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানে।
রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণায়েল দাবি, ক্ষেপণাস্ত্রটি শব্দের চেয়ে সাতগুণ বেশি গতিতে উড়ে গিয়ে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হেনেছে।

পরে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেন, এই ক্ষেপণাস্ত্রকে প্রতিহত করতে পারে এমন কোনো ব্যবস্থা পৃথিবীতে নেই।
এদিকে, অত্যাধুনিক আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৫০০ এর সফল পরীক্ষা চালিয়েছে রাশিয়া। গত মঙ্গলবার (২০ জুলাই) রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এস-৫০০ এর সফল পরীক্ষার ভিডিও উন্মোচন করে।
২০২০ সালে আগস্টে রাশিয়ার উপ-প্রধানমন্ত্রী ইউরি বরিসোভ উন্নত এই এস-৫০০ ব্যবস্থার ব্যাপারে ঘোষণা দিয়েছিলেন। এছাড়া রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন মে মাসে ঘোষণা দেন, রাশিয়ার সেনাবাহিনীর কাছে শিগগিরই অত্যাধুনিক আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-৫০০ হস্তান্তর করা হবে।
রাশিয়া দাবি করেছে এস-৫০০ আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা যুক্তরাষ্ট্রের প্যাট্রিয়ট ব্যবস্থার চেয়ে অনেক উন্নত। এখন পর্যন্ত রাশিয়া নির্মিত এস-৩০০ ও এস-৪০০ আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বর্তমানে বিভিন্ন দেশে ব্যবহৃত হচ্ছে।