দুপুর ২:৫৫, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:







একসঙ্গে ৯ জনকে বিয়ে করলেন মডেল

ব্রাজিলের সাও পাওলোয় আর্থার ও উরসো নামে এক পুরুষ মডেল তার প্রথম স্ত্রীর সম্মতি নিয়ে একসঙ্গে নয়জন নারীকে বিয়ে করেছেন।

ব্রাজিলের এক পুরুষ মডেল একসঙ্গে নয়জন নারীকে বিয়ে করেছেন। তবে তার থেকেও আশ্চর্যের বিষয় হল, তিনি এর আগে এক নারীর সঙ্গে লিভ ইন করতেন এবং তাকে নিয়ে হানিমুনেও গিয়েছিলেন। শুধু তাই নয়, সেই সঙ্গীর সম্মতি নিয়েই তিনি এই বিয়ে করেছেন এবং ওই নয়জনের মধ্যে একজন সেই নারী। ব্রাজিলে তো বটেই, সারা বিশ্বেই এই অদ্ভূত বিয়ে নিয়ে চর্চা চলছে।

সেই মডেলের নাম আর্থার ও উরসো। ব্রাজিলের অন্যতম জনপ্রিয় পুরুষ মডেল আর্থার। কয়েক বছর আগে লুয়ানা কাজাকি নামে একজন ব্লগারের সঙ্গে লিভ ইন করতে শুরু করেছিলেন তিনি। সম্প্রতি লুয়ানা সহ আরও আটজন নারীকে প্রথা মেনে বিয়ে করেছেন আর্থার। জানা গিয়েছে সাও পাওলো শহরের এক গির্জায় এই বিয়ে সম্পন্ন হয়। তারপর সকল স্ত্রীর সঙ্গে একসঙ্গে ছবি তুলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেছেন তিনি।

আর্থার জানিয়েছে,  অবাধ ভালোবাসা উদযাপনের জন্যই তিনি এমনটি করেছেন। আর্থার আরও বলেন, তিনি অবাধে প্রেম করতে চান। বিয়ে ভালবাসাকে সীমাবদ্ধ করে দেয় বলে দাবি করেছেন তিনি। তাই তিনি বিয়ে প্রথার বিরোধী। সেই কারণে এমন একটি উদ্ভট বিয়ে করে বিয়ে প্রথার বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন। তার সঙ্গে তার প্রথম স্ত্রী লুয়ানা কাজাকি তো বটেই, সদ্য বিবাহিত বাকি স্ত্রীরাও তার সঙ্গে সহমত। আর্থারের সঙ্গে সকলে মিলে অবাধ ভালবাসা ও যৌনতায় দিন কাটাতে চান তারা।

অবশ্য এই বিয়ের আগেও আর্থার আরও নানান বিতর্কিত কারণে সংবাদ শিরোনামে এসেছেন। কিছুদিন আগে তিনি তার প্রেমিকা লুয়ানা কাজাকির সঙ্গে হানিমুনে গিয়েছিলেন ক্যাপ ডি’আগদে-তে। এই উদার ফরাসী শহরে পোশাক পরা নিষিদ্ধ। ফলে দুজনেই শহরের বিভিন্ন পর্যটন স্থলে সম্পূর্ণ নগ্ন হয়ে ভ্রমণ করেছিলেন। হানিমুন থেকে তাদের সেইসব নগ্ন ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করার ফলে বিতর্কের ঝড় উঠেছিল। প্রেম হোক বা যৌনতা কোনও সীমার গণ্ডি মানতে চান না আর্থার।