বিকাল ৪:০৮, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ







জানালায় বসে মন দিয়ে ইংরেজি ক্লাস করল হনুমান!

ছাত্রছাত্রীরাও এত মন দিয়ে ক্লাস করে না, যতখানি মন দিয়ে ক্লাস করল সে! তবে স্কুলে পৌঁছেছিল ক্লাসের মাঝামাঝি সময়ে। নবম শ্রেণির ইংরেজি ক্লাসে হঠাৎ হাজির হয়ে শিক্ষক ও ছাত্রদের ইংরেজি পড়া শুনে কতটা বুঝল সে, সেই প্রশ্নও উঠছে।
ইংরেজি ক্লাস শেষে আবার নিজেই বিদায় নিয়েছিল। তার ক্লাসে প্রবেশ ও প্রস্থান পথ ছিল একটি জানলা। আসলে সে অন্য কেউ নয়, কালোমুখো একটি হনুমান। বুধবার ভারদের নদিয়ার শান্তিপুর ব্লকের ফুলিয়া শিক্ষানিকেতন হাইস্কুলে ঘটল এই ঘটনা।

করোনা পরিস্থিতির কারণে সরকারি নির্দেশ অনুযায়ী বেশ কয়েক মাস বন্ধ ছিল স্কুলটি। কয়েকদিন আগে সেই স্কুল খোলার পর ছাত্রদের উপস্থিতি মোটামুটি বেড়েছে। বুধবার নবম শ্রেণির ‘এ’ সেকশনের ইংরেজি ক্লাস নিচ্ছিলেন ইংরেজি শিক্ষক অনিন্দ্য মোদক। ছাত্রসংখ্যা ছিল ৩২ জন। ক্লাস মিনিট পনেরো চলার পর হঠাৎই ছাত্রদের নজর চলে যায় ক্লাসঘরের একটি জানলার দিকে। তারা দেখতে পায়, জানলার শিক ধরে বসে রয়েছে একটি হনুমান।

প্রথমে শিক্ষার্থীরা ভয় পেলেও বিষয়টি শিক্ষক অনিন্দ্য মোদকের নজরে আসতেই তিনি ইশারায় ছাত্রদের শান্ত হতে বলেন। এবং আগের মতোই ক্লাস চালিয়ে যান। এদিকে একবার শিক্ষকের দিকে, একবার ছাত্রদের দিকে তাকিয়ে ছাত্র-শিক্ষকের পড়াশুনো শুনতে থাকে হনুমানটি। হনুমানের কাণ্ড মোবাইল ক্যামেরায় তুলেও রাখেন শিক্ষক অনিন্দ্য মোদক।

অনিন্দ্য মোদক বলেন, ‘ওকে দেখে মনে হচ্ছিল যেন আমাদের পড়াশোনা শুনছে। কোনওরকম বিরক্তি চোখে পড়েনি। জানলার ওপর ঠায় বসে পড়া শুনছিল। আমি সুযোগ বুঝে কিছুক্ষণের জন্য ভিডিও রেকর্ড করি। অন্তত কুড়ি মিনিট ‘ক্লাস করেছে’ হনুমানটি! অবাক হয়েছি আমি। আবার যখন পড়ানো হয়ে গেল, তখন যেন বুঝে গিয়েছিল ক্লাস শেষ, জানালা থেকে নেমে চলে গেল!

হনুমানের কাণ্ড শুনে অনেকেই রসিকতা করে মন্তব্য করেছেন, হয়ত ক্লাস ঠিকমতো হচ্ছে কী না, তা তদারকি করতেই এসেছিল হনুমানটি!