দুপুর ২:২২, ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ







শরণখোলায় তুচ্ছ ঘটনায় স্পর্শকাতর স্থানে লাথি, দিনমজুরের মৃত্যু

মোঃ নাজমুল ইসলাম সবুজ বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ বাগেরহাটের শরণখোলায় প্রতিপক্ষের স্পর্শকাতর স্থানে লাথির আঘাতে মুনসুর হাওলাদার (৩৫) নামে এক দিনমজুরের মৃত্যু হয়েছে।

খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার বিকেলে তার মৃত্যু হয়।

নিহত যুবক বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার খোন্তাকাটা ইউনিয়নের মধ্য খোন্তাকাটা গ্রামের ছামাদ হাওলাদারের ছেলে।

গত মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) দুপুরে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে কথা কাটাকটির এক পর্যায়ে প্রতিবেশী শামছু হাওলাদারের ছেলে সাইদুল হাওলাদার (৩৭) মুনসুরের স্পর্শকাতর স্থানে লাথি মারেন। এতে গুরুতর আহত হন ওই যুবক।

থানা সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার (৩০জুলাই) খুমেক হাসপাতালে মরদেহের ময়না তদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। এঘটনায় নিহতের স্ত্রী শিউলী বেগম বাদী হয়ে শরণখোলা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করবেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঢাকার বাসিন্দা চাচা আলমগীরের বাগানবাড়ি দেখাশোনা করেন মুনসুর। ঘটনার দিন দুপুর ১২টার দিকে ওই বাগানের একটি নারকেল গাছ থেকে জোরপূর্ব কয়েকটি ডাব পাড়েন সাইদুল। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে সাইদুল স্পর্শকাতর স্থানে লাথি দিলে মুনসুর অজ্ঞান হয়ে পড়েন।

এসময় তাকে দ্রুত শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে অবস্থার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয় তাকে।

শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইদুর রহমান জানান, এ ব্যাপারে হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘাতক সাইদুলকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে পুলিশ।