রাত ১২:৩৯, ১২ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:







বুস্টার ডোজের আওতায় দেশের প্রায় ৪ কোটি মানুষ

করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে গত একদিনেই (১ আগস্ট) সারাদেশে আরও ১ লাখ ৩০ হাজার ৭০৫ জন বেশি মানুষ বুস্টার ডোজ নিয়েছেন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত বুস্টার ডোজ টিকা পেয়েছেন প্রায় চার কোটি মানুষ।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনার টিকাদান বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা গেছে। এতে স্বাক্ষর করেছেন অধিদপ্তরের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন শাখার (এমআইএস) পরিচালক ও লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. শাহাদাত হোসেন।

বিজ্ঞপ্তির তথ্য অনুযায়ী, দেশে ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রমের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত প্রথম ডোজ পেয়েছেন ১২ কোটি ৯৭ লাখ ১৪ হাজার ৭৪ জন এবং দুই ডোজ নিয়েছেন ১২ কোটি ৫ লাখ ৫৬ হাজার ১০০ জন মানুষ। আর বুস্টার ডোজ নিয়েছেন তিন কোটি ৯৯ লাখ ৫৬ হাজার ৫২৭ জন।

এতে আরও বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় (সোমবার) সারাদেশে প্রথম ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে ৮ হাজার ৫৮৯ জনকে, দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে ২৯ হাজার ৮৪৬ জনকে। এছাড়াও বুস্টার ডোজ টিকা পেয়েছেন ১ লাখ ৩০ হাজার ৭০৫ জন মানুষ। এগুলো দেওয়া হয়েছে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা, সিনোফার্ম, ফাইজার, মডার্না এবং জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা।

গত ১ নভেম্বর থেকে বাংলাদেশে ১২-১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়। তাদের মধ্যে এখন পর্যন্ত এক কোটি ৭৩ লাখ ৫২ হাজার ৮৫৯ জনকে প্রথম ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে। দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে এক কোটি ৬১ লাখ ৪৪৬ জনকে।

অধিদপ্তর জানিয়েছে, দেশে এখন পর্যন্ত ৩ লাখ ৭৪ হাজার ৯৮৪ জন ভাসমান জনগোষ্ঠী টিকার আওতায় এসেছেন। তাদেরকে জনসন অ্যান্ড জনসনের সিঙ্গেল ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২৭ জানুয়ারি দেশে করোনা টিকার নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হয়। ওই বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে সাধারণ মানুষকে টিকা দেওয়া শুরু হয়। বর্তমানে ১৮ বছর বা তার চেয়ে বেশি বয়সী যে কেউ টিকা নিতে পারছেন।