রাত ২:৫৯, ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:







কলকাতায় বাংলাদেশ উপদূতাবাসের সামনে এলোপাতাড়ি গুলি, নিহত ২

ভারতে কলকাতার পার্ক সার্কাস এলাকায় পুলিশ সদস্যের এলোপাথাড়ি গুলিতে এক নারী পথচারী নিহত হয়েছেন। পরে ওই পুলিশ সদস্য নিজেও গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেন।

শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশন থেকে প্রায় ২০-২৫ মিটার দূরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন কলকাতা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

চোদুপ লেপচা নামে ওই পুলিশ সদস্য পঞ্চম ব্যাটালিয়নে কর্মরত ছিলেন। তিনি তিন দিন আগে ডেপুটি হাইকমিশনের বাইরের আউটপোস্টে নিরাপত্তার দায়িত্বে যোগদান করেন বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, শুক্রবার দুপুর ২টার দিকে বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশন থেকে একটু দূরে লোয়ার রেঞ্জ রোডে দিকভ্রান্ত হয়ে ঘুরতে থাকেন চোদুপ লেপচা নামে ওই পুলিশ সদস্য। এ সময় স্থানীয় এক সহকর্মীর বাসার খোঁজ করতে থাকেন তিনি। তবে স্থানীয় বাসিন্দারা তাকে জানান এই নামে কোনো পুলিশ সদস্য এখানে বাস করেন না।

এক সময় তিনি হঠাৎ করেই তার ব্যবহৃত রাইফেল থেকে এলোপাতাড়ি গুলি চালাতে শুরু করেন। এ সময় মোটরসাইকেলে আসা এক নারীর দেহে গুলি লাগলে ঘটনাস্থলে তিনি মারা যান। এছাড়াও গুলি মোটরসাইকেল চালকের গায়ে লাগলে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় নিহত নারী পথচারীর পরিচয় জানা যায়নি।

এরপর আবারও ওই পুলিশ সদস্য এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়তে থাকে। এ ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দারা আতঙ্কে সরে যান। এক সময় ওই পুলিশ সদস্য তার গলায় নিজের রাইফেল ঠেকিয়ে গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেন।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, ওই পুলিশ সদস্য অন্তত ১৫ থেকে ১৬ রাউন্ড গুলি চালিয়েছে।