সকাল ৭:৪৬, ২৬শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:







নেত্রকোনার কুদ্দুস বয়াতির মা না ফেরার দেশে

বিজয় দাস, নেত্রকোনা:  জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী কুদ্দুস বয়াতির মা আমেনা চলে গেলেন না ফেরার দেশে। শনিবার (১১ জুন) দুপুর ২টায় তার মৃত্যু হয়েছে। খবরটি নিশ্চিত করেছেন শিল্পী নিজেই। বার্ধক্যজনিত কারণে মায়ের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন কুদ্দুস বয়াতি।

তিনি বলেন, ‘গত ১৫ বছর ধরে আমার মা অসুস্থ ছিলেন। হাঁটতে পারতেন না। গত ছয় মাস ধরে একেবারে অচলাবস্থা ছিলো। আজ দুপুর ২টায় মা ইন্তেকাল করেন। আমার মা আমার সব কিছুর উৎসাহ ও প্রেরণা ছিলেন।”

আমেনা খাতুনের বয়স ১০০ বছরের বেশি বলে জানান কুদ্দুস বয়াতি। দীর্ঘদিন বিছানায় পড়ে ছিলেন। হাসপাতালে নিয়েও মায়ের চিকিৎসা করিয়েছেন বয়াতি।কুদ্দুস বয়াতির বাড়ি নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার কান্দিউড়া ইউনিয়নে। সেখানেই পারিবারিক কবরস্থানে মাকে দাফন সম্পন্ন হয়েছে বলে জানান শিল্পী। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় অনুষ্ঠিত হয়েছে জানাজা।

উল্লেখ্য, আরফান আলী ও আমেনা খাতুনের আট সন্তান। এর মধ্যে সবার বড় কুদ্দুস বয়াতি। তিনি বাংলা লোকগানে অসামান্য খ্যাতি লাভ করেছেন। ১৯৯২ সালে প্রয়াত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ কর্তৃক নির্মিত বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষার প্রচারণার অংশ হিসেবে গাওয়া ‘এই দিন, দিন না আরো দিন আছে’ শিরোনামের গানটি গেয়ে দেশজুড়ে পরিচিতি পান। পরবর্তীতে আরও অনেক গান উপহার দিয়েছেন তিনি। এমনকি এই প্রজন্মের শিল্পী প্রীতম হাসানের সঙ্গে ‘আসো মামা হে’-এর মতো আধুনিক গানও গেয়েছেন কুদ্দুস বয়াতি। বিভিন্ন ধরনের টেলিভিশন নাটকে অভিনয় ও করেছেন তিনি।