দুপুর ১:০৪, ২২শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ







হজ নিবন্ধন ১৬ থেকে ১৮ মে

সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ পালনের জন্য নিবন্ধন কার্যক্রম চলবে আগামী ১৬ মে থেকে ১৮ মে পর্যন্ত এই তিন দিন। বৃহস্পতিবার (১২ মে) ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে এ তথ্য।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সরকারি ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে ২০২০ সালের নিবন্ধিত সব হজযাত্রী এবং প্রাক-নিবন্ধনের সর্বশেষ ক্রমিক নম্বর ২৫ হাজার ৯২৪ পর্যন্ত এ বছর হজ নিবন্ধনের আওতায় আসবেন। এছাড়া বেসরকারি ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে এ বছর ২০২০ সালের নিবন্ধিত সব ব্যক্তি আওতায় আসবেন।

প্রার্থীকে পাসপোর্ট স্ক্যান করে নিবন্ধন তথ্য পূরণ করতে হবে। হজের দিন থেকে ২০২৩ সালের চার জানুয়ারি পর্যন্ত পাসপোর্টের মেয়াদ থাকতে হবে। অনলাইনের মাধ্যমে প্রার্থীদের দাখিল করা পাসপোর্ট যাচাই করা হবে।

নিবন্ধনের পর কোনো প্রার্থী যদি হজে যেতে না পারেন, তাহলে কেবল বিমানভাড়া এবং খাবার বাবদ গ্রহণ করা টাকা ফেরত পাবেন। কোনো প্রার্থী যদি বিমানের টিকিট নিশ্চিত হওয়ার পর হজযাত্রা বাতিল করেন, তাহলে সেই টিকিটের টাকা ফেরত পাবেন না।