দুপুর ২:২৯, ২২শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ







বান্দরবানে ভাবগম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন

অসীম রায় বান্দরবান: ভাবগম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে বান্দরবানে পালিত হয়েছে বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব বুদ্ধ পূর্ণিমা। প্রার্থনা আর ধর্মীয় মঙ্গল কর্ম সম্পাদনের মাধ্যমে বৌদ্ধ ধর্মালম্বীরা এই বুদ্ধ পূর্ণিমা উদযাপন করেছে।

আজ ১৪  মে শনিবার সকালে বান্দরবান শহর উজানী পাড়া বৌদ্ধ বিহার হতে একটি বর্ণাঢ্য শোভযাত্রা মাধ্যমে বুদ্ধ পূর্ণিমা শুরু হয়। এসময় বর্ণাঢ্য শোভযাত্রা বের হয়ে শহরে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষীণ করে রাজগুরু বৌদ্ধ বিহারে এসে সমাবেত হয়।

বটবৃক্ষে প্রাঙ্গণে শুরু হয় পঞ্চমশীল অষ্টশীল প্রার্থনা, বৌদ্ধ ভিক্ষুদের পিন্ড দান (খাবার), ফলমুল ও নগদ অর্থ প্রদান এবিং বৌধিবৃক্ষ মূলে চন্দন জলসহ নানা ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতা শেষে উজানী পাড়া বৌদ্ধ বিহারে নর-নারী উপস্থিত হয়ে রাজগুরু মহাথেরো ধর্মদেশনা প্রদান করে।

সকাল থেকে বৌদ্ধ ধর্মালম্ব শিশু, কিশোর, নর-নারী সহ তরুন ও তরুণী পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠে বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারগুলো। ধর্মপ্রাণ বৌদ্ধ নারী ও পুরুষেরা ইসকাল ও পরকালের শান্তির জন্য বুদ্ধ নিকট প্রার্থনা করেন।

বৌদ্ধধর্মাল্বীদের মতে, বৈশাখী পূর্ণিমা দিনটি বুদ্ধের ত্রিস্মৃতি বিজড়িত। এই পবিত্র তিথিতে বুদ্ধ জন্মগ্রহণ করেছিলেন, বোধি বা সিদ্ধিলাভ করেছিলেন এবং মহাপরিনির্বাণ লাভ করেছিলেন। এই দিনে বৌদ্ধধর্মাবলম্বীগণ স্নান করেন, শুচিবস্ত্র পরিধান করে মন্দিরে বুদ্ধের বন্দনায় রত থাকেন।

বোমাং রাজার পুত্র মং ওয়ে প্রু, সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যন য়ইসা প্রু, পৌর কাউন্সিলর মংমং সিং, জেলা পরিষদ প্রাশাসনিক কর্মকর্তা উচিংমং মারমা, রাজগুরু বৌদ্ধ বিহারে অধ্যক্ষ ভদন্ত কেতু মহাথেরো, উজানী পাড়া রাজগুরু বিহারে অধ্যক্ষ ড. সুবলংকারা মহাথেরোসহ দায়ক-দায়িকারা উপস্থিত ছিলেন।