দুপুর ১:৩৪, ২২শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ







মারা গেছেন কিংবদন্তী নৃত্যশিল্পী বিরজু মহারাজ

প্রয়াত কত্থক নাচের কিংবদন্তী পণ্ডিত বিরজু মহারাজ রোববার রাতে দিল্লিতে নিজ বাড়িতেই হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম নিউজ১৮ এর তথ্য মতে, কয়েকদিন আগেই কিডনির রোগের চিকিৎসা করিয়েছিলেন তিনি, করা হয়েছিল ডায়ালিসিস।

উপমহাদেশের কত্থক কিংবদন্তি ঈশ্বরী প্রসাদের এ বংশধর জন্ম নেন জন্ম ১৯৩৮ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি। বাবা পতি অচ্ছন মহারাজের কাছে ‘তেহাই’ আর ‘টুকরা’ আবৃত্তি দিয়ে শুরু; আট বছর বয়সেই নাচ, গান আর বাদনে তুখোড় হয়ে ওঠেন।

নয় বছর বয়সে ‘শিক্ষক’ বাবাকে হারিয়ে ছন্দপতন। নিরুপায় হয়ে ভিটেবাড়ি বিক্রি করতে হলেও সংগীত আর নৃত্যসাধনা থেকে একচুল বিচ্যুত হননি ‘দুঃখহরণ নাথ’। শৈশবে এ নামেই পরিচিত ছিলেন বিরজু মহারাজ।

দেশেটির দ্বিতীয় সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান পদ্ম-বিভূষণে সম্মানিত হয়েছিলেন বিরজু মহারাজ। কত্থক ধ্রুবদী নাচে বিশ্বজুড়ে খ্যাতি অর্জন করেছিলেন তিনি। সারা দেশজুড়ে বিরজু মহারাজের অসংখ্য ভক্ত ও ছাত্রছাত্রী রয়েছেন। বলিউডের সঙ্গেও গভীর যোগ ছিল তাঁর।

ভক্তরা তাঁকে ভালোবেসে ও শ্রদ্ধা জানিয়েই পণ্ডিতজি বা মহারাজজি বলে সম্বোধন করতেন। ভারতীয় সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের বাহক হিসেবে অন্যতম সেরা শিল্পী ছিলেন তিনি। জানা গিয়েছে, দিল্লিতে নিজের বাড়িতে রবিবার নাচি-নাতনিদের সঙ্গে খেলছিলেন তিনি। সেই সময় থেকেই তাঁর শারীরিক কষ্ট শুরু হয়। আচমকাই জ্ঞান হারান তিনি। দ্রুত তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর, চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।