ভোর ৫:৫২, ২৮শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ







শততম ম্যাচে দু’দলেরই লক্ষ্য এগিয়ে যাওয়া

একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে একে অপরের বিপক্ষে ৯৯টি ম্যাচ খেলে ফেলেছে শ্রীলঙ্কা ও অস্ট্রেলিয়া। এবার শততম ম্যাচে মাঠে নামছে স্বাগতিক ও সফরকারী দল। প্রথম দুই ওয়ানডে শেষে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ১-১ সমতা বিরাজ করছে।

আজ রবিবার মুখোমুখি হতে যাওয়া শততম ও সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে জিতে এগিয়ে যেতে মরিয়া উভয় দলই। কলম্বোতে বাংলাদেশ সময় বেলা ৩টায় শুরু হবে তৃতীয় ওয়ানডে ম্যাচটি।

গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের ব্যাটিং ঝড়ে প্রথম ওয়ানডেতে দারুণ এক জয়ের স্বাদ পায় অস্ট্রেলিয়া। সাত নম্বরে নামা এই অজি মারকুটের ৫১ বলে অপরাজিত ৮০ রানের সুবাদে বৃষ্টি আইনে ২ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় সফরকারীরা। যার ফলে ৩০০ রানের বড় টার্গেট দিয়েও ম্যাচ হারতে হয় শ্রীলঙ্কাকে।

তবে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ২২০ রানের মামুলি পুঁজি নিয়েও বোলারদের কল্যাণে ২৬ রানের জয় পায় দাসুন শানাকার দল। অবশ্য ম্যাচে ৩৪ ওভার পর্যন্ত জয়ের পথেই ছিল অস্ট্রেলিয়া। তবে মাত্র ১৯ রানে শেষ ৫ উইকেট হারালে ১৮৯ রানেই থেমে যায় অজিদের ইনিংস।

দ্বিতীয় ম্যাচে দলের সেরা স্পিনার হাসারাঙ্গা ডি সিলভাকে ছাড়াই মাঠে নেমেছিল শ্রীলঙ্কা। তৃতীয় ম্যাচেও অনিশ্চিত এই অলরাউণ্ডার। তবে হাসারাঙ্গার অনুপস্থিতিতে বল হাতে নিজেদের দায়িত্বটা ভালোভাবেই পালন করেন ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা ও দুনিথ ওয়েলালাগে। দু’জনই ২টি করে উইকেট নেন। দলের জয়ে অবদান ছিল দুই পেসার দুশমন্থা চামিরা ও চামিকা করুনারত্নেরও। চামিরা ২টি ও করুনারত্নে ৩টি উইকেট নেন।

বোলারদের পারফরমেন্সে খুশি লঙ্কান অধিনায়ক দাসুন শানাকা। ব্যাটাররা আরও একবার জ্বলে উঠতে পারলে সিরিজে লিড নেয়া সহজ হবে বলেই মনে করেন তিনি।

শানাকা বলেন, ‘প্রথম ম্যাচে ব্যাটাররা ভালো করেছে, দ্বিতীয়টিতে বোলাররা। একত্রে দুই বিভাগ জ্বলে উঠলে, সিরিজে এগিয়ে যাওয়া কঠিন কিছু নয়। আশা করছি, জয়ের ধারা অব্যাহত রেখে সিরিজে লিড নিতে পারব আমরা।’

শ্রীলঙ্কা যখন একাদশ নিয়ে নির্ভার। তখন একাদশ সাজাতেই হিমশিম খেতে হচ্ছে অস্ট্রেলিয়াকে। ইনজুরিতে ওয়ানডে সিরিজ থেকে ছিটকে পড়েছেন দলের সেরা তারকারা।

সিরিজ শুরুর আগেই ইনজুরির কারণে ছিটকে পড়েন মিচেল স্টার্ক, মিচেল মার্শ ও কেন রিচার্ডসন। আর সিরিজ চলাকালীন ইনজুরির তালিকায় নাম লেখান অলরাউন্ডার মার্কাস স্টয়নিস ও স্পিনার অ্যাস্টন আগার। তাই একাদশ নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় অস্ট্রেলিয়া।

দলের অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ বলেন, ‘ইনজুরিতে অনেকেই ওয়ানডে সিরিজ থেকে ছিটকে গেছেন। তবে যারা আছেন, তাদের নিয়ে আমাদের লড়াই করতে হবে। দলের অন্যান্যরাও ভালো খেলার সামর্থ্য রাখে। তবে সিনিয়রদের আরও দায়িত নিয়ে খেলতে হবে।’

এখন পর্যন্ত ওয়ানডেতে ৯৯ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে অস্ট্রেলিয়া ও শ্রীলঙ্কা। অজিদের জয় ৬২টিতে, আর শ্রীলঙ্কার জয় ৩৩টিতে। ৪টি ম্যাচে কোনো ফল আসেনি।

শ্রীলঙ্কা একাদশ: 
দানুশকা গুনাথিলাকা, পাথুম নিশাঙ্কা, কুশল মেন্ডিস, চারিথ আসালাঙ্কা, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, দাসুন শানাকা (অধিনায়ক), চামিকা করুনারত্নে, দুনিথ ওয়েললাগে, দুশমন্থা চামিরা, জেফরি ভ্যানডারসে ও মাহেশ থিকসানা।

অস্ট্রেলিয়া একাদশ:
ডেভিড ওয়ার্নার, অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), স্টিভেন স্মিথ, মার্নাস লাবুশানে, অ্যালেক্স ক্যারি, ক্যামেরন গ্রিন, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, প্যাট কামিন্স, মিচেল সোয়েপসন, ম্যাথু কুনেমান ও জশ হ্যাজেলউড।