বিকাল ৫:০১, ৩০শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:







এমবাপ্পের হ্যাটট্রিকে পিএসজির বড় জয়

দুর্দান্ত জয়ে মৌসুম শেষ করলো পিএসজি। কিলিয়ান এমবাপ্পের হ্যাটট্রিকে মেটসের বিপক্ষে বড় জয় পেয়েছে মাওরিসিও পচেত্তিনোর দল।

শনিবার রাতে লিগ ওয়ানের শেষ রাউন্ডের ম‍্যাচে ৫-০ গোলে জিতেছে পিএসজি। এমবাপ্পের হ‍্যাটট্রিক ছাড়াও জালের দেখা পেয়েছেন নেইমার ও ডি মারিয়া।

শেষ ম‍্যাচে গোল করে আপ্লুত হয়ে পড়েন আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার। চোখে জল নিয়ে উদযাপন করেন গোল। এর কিছুক্ষণ পর মাঠ ছাড়েন ডি মারিয়া। এসময়ে পিএসজির সব সদস‍্য দাঁড়িয়ে ‘গার্ড অব অনার’ দেন তাকে। সমর্থকদের তুমুল করতালির মধ‍্যে ডাগ আউটে যান তিনি।

তখন গ‍্যালারিতে তার স্ত্রীর চোখেও ছিল পানি।

নিজ মাঠে ম্যাচের শুরু থেকেই প্রতিপক্ষকে চেপে ধরে ফরাসি জায়ান্টরা। ২৫ মিনিটে দলকে লিড এনে দেন এমবাপ্পে। প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়ের দুই পায়ের ফাঁক দিয়ে জাল খুঁজে নেন ফরাসি তারকা।

চার মিনিট পর তারই গোলে আরও এগিয়ে যায় পিএসজি। মেটসের গোলরক্ষককে পরাস্ত করে কাছের পোস্ট দিয়ে বল জালে পাঠান ফরাসি তারকা।

৩১তম মিনিটে নেইমারের চমৎকার গোলে ৩-০ ব্যবধানে বিরতিতে যায় স্বাগতিকরা। বুবাকার কুইয়াত স্লাইড করলে পেয়ে যান নেইমার। চমৎকার ফিনিশিংয়ে বাকিটা সারেন ব্রাজিল তারকা।

৫০তম মিনিটে দুর্দান্ত গোলে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। বক্সের সামনে মেটসের ডিফেন্ডার সারের কাছে বল হারালেও প্রেস করে আবার সেই বল দখলে নেন ফরাসি তারকা। এরপর গোলরক্ষক মার্ক-অরেল কাইলার্দকে নাকানি-চুবানি খাইয়ে বল জালে পাঠান এমবাপ্পে। এই মৌসুমে এটি তার ২৮তম গোল।

৪ গোল হজমের পর মেটসের জন্য মরার ওপর খাঁড়ার ঘা হয়ে আসে ৫৮তম মিনিটে বুবাকার ট্রায়োরের মাঠ ছাড়ার ঘটনা। ম্যাচে দুটি হলুদ কার্ড দেখেন তিনি। ফলে ম্যাচের শেষ আধাঘণ্টা ১০ জন নিয়েই খেলতে হয় তাদের।

৬৭তম মিনিটে শেষ গোলটি আসে অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার পা থেকে। এমবাপের বাড়ানো বল বুক দিয়ে নামিয়ে বুলেট গতির শট নেন মেসি। পোস্ট কাঁপিয়ে ফেরা বল পেয়ে যান ডি মারিয়া। ফাঁকা জালে বল পাঠান তিনি।

পিএসজির হয়ে নিজের শেষ গোলটি করে বিদায়ী ম্যাচকে স্মরণীয় করে রাখেন আর্জেন্টাইন এই তারকা।

২৬ জয় ও আট ড্রয়ে ৮৬ পয়েন্ট নিয়ে লিগ শেষ করল পিএসজি।