সকাল ৬:৩৮, ২৮শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ







কুষ্টিয়ায় দাফনের ৩ দিনপর কবর থেকে লাশ উত্তোলন

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে দাফনের প্রায় তিনদিন পরে কবর থেকে খাইরুল ইসলাম রতন (৪০) নামের এক ব্যক্তির মরদেহ উত্তোলন করা হয়েছে। বুধবার রাতে ছেঁউড়িয়া বিশ্বাসপাড়া কবরস্থান থেকে লাশ উত্তোলন করেন নিহতের স্বজনরা। এসময় কুমারখালী থানার পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।

নিহত খাইরুল ইসলাম রতন ঢাকা গাজিপুর জেলার কালিগঞ্জের দক্ষিণ খালপাড়া এলাকার মৃত আহসান উল্লাহর ছেলে। তিনি একজন লালন শাহের ভক্ত ছিলেন।

পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানায়, প্রায় চার বছর যাবৎ রতন ছেঁউড়িয়া বাউল সম্রাট লালন ফকিরের মাজারে ছিলেন। তাঁকে সবাই গিটার পাগল নামেই চিনতেন। গত সোমবার (২০ জুন) সকালে লালন শাহ মাজার মাঠে তাঁর লাশ পাওয়া যায়। পরে বেওয়ারিস হিসেবে ছেঁউড়িয়া বিশ্বাসপাড়া কবরস্থানে জেলা প্রশাসকের অনুমতিতে লাশটি দাফন করা হয়। এবং লাশের ছবি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ও প্রশাসনিকভাবে প্রচার করা হয়।

তাঁরা আরো জানায়, ছবি দেখে নিহতের মেঝো ভাই শহিদুল ইসলাম মানিক ও ছোট ভাই জাহিদুল ইসলাম মুক্তা বুধবার সন্ধায় ছেঁউড়িয়া লালন শাহের মাজার এলাকায় আসেন। এরপর রাত আটটার দিকে কবর থেকে লাশ উত্তোলন করে নিয়ে যায়। এ সময় কুমারখালী থানা পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।

কুমারখালী থানার ওসি কামরুজ্জামান তালুকদার বলেন, ‘ বেওয়ারিশ হিসেবে লাশ দাফন করা হয়েছিল। পরে তাঁর দুই ভাই লাশ সনাক্ত করে উত্তোলন করে নিয়ে গেছেন।’