রাত ৪:১১, ১৬ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:







কলমাকান্দায় চলমান বন্যায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি লেঙ্গুড়া ফুলবাড়িয়া

কলমাকান্দা থেকে রীনা হায়াৎঃ নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলা লেঙুড়া ইউনিয়নের ফুলবাড়ীয়া, বন্যা পরবর্তী কি হবে-তা নিয়ে দুঃচিন্তা বন্যার্থ মানুষের। বন্যায় প্লাবিত এ অঞ্চলের ব্যাপক ক্ষতি হওয়ায উৎবিঘ্ন ও দিশেহারা হয়ে পড়েছে মানুষ। চরম দুর্ভোগ মানুষের। হাহুতাশ, বন্যার্থ মানুষের নেই কোন বীজতলা, মৎসচাষীদের নেই পুকুরে মাছ। রাস্তাঘাট ও কাচা ঘরবাড়ী বিধ্বস্ত। কি করে মেরামত করবে?

গতকাল শনিবার লেঙ্গুড়া ইউনিয়নের ফুলবাড়ী, কাইবাড়ি,কালাপানি জগনাথপুর কাঠালবাড়ী এলাকায় তাই দেখা গেছে।

লেঙ্গুড়া ইউপি চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান ভূইয়াঁ জানান, সামনে ২৬শে জুলাই ঐতিহাসিক নাজিরপুর যোদ্ধ দিবস, বন্যায় সাত শহীদ সড়কটি ভেঙে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি, যান চলাচল বন্ধ। আমি উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি বন্যার্ত মানুষের পাশাপাশি সাত শহীদ সড়কটি খুব দ্রুত মেরামত এবং এই এলাকা’কে দূর্গত এলাকা ঘোষণা করার জন্য।

বন্যা কবলিত প্রতিভা রংদী টিবা ও হিমা ঘাগ্রা জানান, ভারত থেকে নেমে আসা গায়েশ্বরী নদীর স্রোতে আমাদের ঘরবাড়ি ভেসে গেলে আমরা নিরুপায় হয়ে রাতেই মেঘালয় পাহাড়ের টিলায় আশ্রয় নেই, সেখানে তিনদিন তিনরাত থাকি। ফিরে এসে দেখি কিছুই নেই বালু আর পাথর ছাড়া। একই চিত্র দেখা গেছে, ফুলবাড়ীয়া আশ্রয়ণ প্রকল্প নদীর পূবপাশ্বে জগনাথপুর এলাকায় কৃষকের ফসলি জমিগুলোতে বালুস্তপ, শাকসব্জির বাগানগুলো বালুভর্তি, দিশেহারা কৃষক।