সকাল ৭:৪৭, ১৫ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:







লালমনিরহাটে ছেলেকে ফিরে পেতে বাবা-মায়ের আমরণ অনশন

রাসেল ইসলাম, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার সিঙ্গিমারী গ্রামের হাফেজ রাব্বিতুল ইসলাম রাব্বি অপহরণের ২১ দিনেও উদ্ধার হয়নি। ওই ঘটনায় মামলা হলেও এখনো আসামীদের গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। হাফেজ রাব্বিকে উদ্ধার ও আসামীদের গ্রেফতারের দাবীতে আমরণ অনশন শুরু করেছেন তার পরিবারের লোকজন।

বুবধার সকাল ৮ টা থেকে উপজেলা পরিষদ গেটে বুড়িমারী-লালমনিরহাট মহাসড়কের পাশে এ আমরণ অনশন শুরু করে তার পরিবার। তার বাবা বলছেন, আজ ও কালকের মধ্যে তার সন্তান উদ্ধার না হলে তিনি আত্মহত্যা করবেন।

জানা গেছে, হাতীবান্ধা উপজেলার সিঙ্গিমারী আলিমের ডাঙ্গা হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষার্থী একই গ্রামের আব্দুল রসিদের পুত্র হাফেজ রাব্বিতুল ইসলাম রাব্বি (১২)। রাব্বির পরিবারকে না জানিয়ে তাবলীগ জামাতের কথা বলে গোপনে ওই উপজেলার ডাউয়াবাড়ী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডে সোহাগের বাজার এলাকায় নিয়ে যায় ওই মাদ্রাসার শিক্ষক রবিউল ইসলামসহ দুই জন। গত ৭ জুলাই তার পরিবারকে খবর দেয়া হয় রাব্বিতুল ইসলাম রাব্বি তিস্তা নদীতে গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজ হয়েছে। কিন্তু রাব্বির পিতা আব্দুল রসিদের দাবী, নদীতে গোসলের নামে নিখোঁজের নাটক তৈরী করেছেন ওই মাদ্রাসার শিক্ষক রবিউল ইসলাম ও রিয়াজুল ইসলাম। তার দাবী রাব্বীকে ভিন্ন কোনো কারণে গুম বা পাচার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় ১৭ জুলাই বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও আমলী আদালত-৪ লালমনিরহাটে মামলা দায়ের করে রাব্বীর বাবা রশিদুল ইসলাম। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে আসামীদের গ্রেফতারের নির্দেশ দিলেও এখন পর্যন্ত আসামীদের গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

মামলার বাদীর অভিযোগ, আসামীরা প্রকাশ্য ঘুরে বেড়াছে এবং উল্টো বাদীকে হুমকিও দিচ্ছে। ফলে তারা আমরণ অনশন শুরু করেছে। আজ ও কালকের মধ্যে আসামী গ্রেফতার না হলে আত্মহত্যা করার কথা বলেন রাব্বির বাবা।

হাতীবান্ধা থানার ওসি শাহ আলম জানান, আদালতের আদেশে অভিযোগটি নতিভুক্ত করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।