সকাল ৬:৪৯, ১৫ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম:







বগুড়ায় ককটেলসহ জামায়াতের ১০ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার

বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার সাজাপুর ফুলতলা এলাকায় নাশকতার প্রস্তুতির অভিযোগে ১০ জামায়াত নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রোববার (৩১ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, বগুড়ার শাজাহানপুরের সাজাপুর দাঁড়িকামারী দক্ষিণপাড়া গ্রামের আব্দুল মতিন, সুজাবাদ বালাপাড়া গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিক ঠাণ্ডু, সুজাবাদ রাজধানীপাড়া গ্রামের মোকাদ্দেসুর রহমান মোত্তাকিম, সুজাবাদ উত্তরপাড়া গ্রামের বিল্লাল হোসেন, জামুন্না বগুড়াপাড়া গ্রামের আমিনুল ইসলাম, লতিফপুর মধ্যপাড়া গ্রামের নজরুল ইসলাম, বেজোড়া দক্ষিণপাড়া গ্রামের আনছার আলী ও আরাফ, শেরপুর উপজেলার কলতা গ্রামের শফিকুল ইসলাম এবং একই উপজেলার কালশিমাটি গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম। গ্রেপ্তারকৃতদের দলীয় পদ-পদবি জানা না গেলেও তারা জামায়াতের সক্রিয় কর্মী বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, আজ রোববার ভোরে সাজাপুর ফুলতলা এলাকায় জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মী নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের লক্ষ্যে সমবেত হয়ে গোপন বৈঠক করছেন। এমন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ১০ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ৪০ থেকে ৫০ জন দৌড়ে পালিয়ে যান। পরে সেখান থেকে চারটি তাজা ককটেল, চারটি লোহার শাবল, পাঁচটি হাতুড়ি, পাঁচটি লোহার ছেনি ও লাঠিসোঁটা উদ্ধার করা হয়।

এ বিষয়ে শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, রাষ্ট্রবিরোধী নাশকতার পরিকল্পনা এবং বিস্ফোরক (ককটেল) উদ্ধারের ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে গ্রেপ্তারকৃত ১০ জনের নাম উল্লেখ মামলা দায়ের করেছে। মামলায় আরও অজ্ঞাতনামা ৫০ জনকে আসামি করা হয়েছে। তবে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।